এভাবে গার্মেন্ট শ্রমিকদের ডেকে আনা ঠিক হয়নি: প্রধানমন্ত্রী

এভাবে গার্মেন্ট শ্রমিকদের ডেকে আনা ঠিক হয়নি: প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা ও আশেপাশের কারখানায় নিয়োজিত পোশাক কর্মীদের গ্রামের বাড়ি থেকে ডেকে আনা ঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, ‘সুপারভাইজারকে দিয়ে শ্রমিকদের ফোন করানো হলো। এভাবে শ্রমিকদের ডেকে আনা কোনোভাবেই ঠিক হয়নি। মাইলের পর মাইল হেঁটে এসেছে। অনেক বাবা তার মেয়েকে নিয়ে এসেছেন। গাড়িঘোড়া বন্ধ ছিল। শ্রমিকদের আনার ব্যবস্থা যেমন করা হবে, নেওয়ার ব্যবস্থাও করতে হবে।’

সোমবার (২০ এপ্রিল) গণভবনে এক ভিডিও কনফারেন্সে ঢাকা বিভাগের কয়েকটি জেলা এবং ময়মনসিংহ বিভাগের জেলা প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস. এম. তরিকুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে ‘বিজেএমইএ‘র সভাপতি রুবানা হক ২৫ এপ্রিলের পর চিঠি দিয়ে কিছু কারখানা খোলার কথা জানিয়েছেন এবং শ্রমিক পরিবহনে বাস চেয়েছেন’ জানালে এর প্রেক্ষিতে গার্মেন্টস খোলার প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

এসময় গাজীপুরের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ হিমশিম খাচ্ছে বলে জানিয়ে গাজীপুরের দুর্দশার কথা তুলে ধরে পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার (পিপিএম)। তিনি বলেন, অনেক গার্মেন্টস আছে পিপিই বানানোর কথা বলে শ্রমিকদের ডেকে এনে অন্য ধরণের পণ্য সামগ্রী বানাচ্ছে। তারা শ্রমিকদের ঠকাচ্ছে। এ বিষয়ে আপনার (প্রধানমন্ত্রী) সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা প্রয়োজন।

পরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা গার্মেন্টসের নেতাদের সঙ্গে বসবো। তাদের সঙ্গে কথা বলবো এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবো।

গাজীপুরে শিল্প কারখানা খোলা রাখার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘লকডাউন নিশ্চিত করে সীমিত পর্যায়ে হলেও উৎপাদন অব্যাহত রাখতে হবে। সেটি কীভাবে করা যায় নিশ্চিত করতে হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here